টঙ্গীতে বিকাশের টাকা ছিনতাই চেষ্টা ২ ছাত্রলীগ নেতা আটক

টঙ্গীতে বিকাশের টাকা ছিনতাই চেষ্টা ২ ছাত্রলীগ নেতা আটক

গাবতলী সংবাদ ডটকম ডেস্ক।। টঙ্গীতে বিকাশ এজেন্টের টাকা ছিনতাই ঘটনার সঙ্গে জড়িত কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী মঞ্জুর ও ইয়াসিনকে আটক করে পুলিশ। এই ঘটনায় টঙ্গীতে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতাকে ছাড়িয়ে নিতে খবর দিলে তার সহযোগীরা কলেজ গেট এলাকায় এসে জড়ো হয়। পরে বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতারা কলেজ গেটে শিল্প পুলিশের ব্যারাক ঘেরাও করে কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী মঞ্জুকে ছাড়িয়ে নেয় এবং তারা প্রায় ১ ঘণ্টা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে।বিকাশের টাকা বহনকারী আনসার সদস্য লুৎফর রহমান জানান, তারা ৩ জন আনসার সদস্য কলেজ গেটের বিপরীত পাশে যমুনা ব্যাংকে টাকা জমা দিতে আসেন। ব্যাংকের সামনে গাড়িতে বসে লক্ষ্য করেন মহাসড়কের পশ্চিম পাশে কলেজ গেটে একদল ছিনতাইকারী বিকাশের একজন কালেক্টরকে ধরে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। এ দৃশ্য দেখে তারা দ্রুত দৌড়ে রোড ডিভাইডার অতিক্রম করে ছিনতাইকারীদের ঘিরে ধরেন। এ সময় একজন ছিনতাইকারী তাদেরকে গুলি করতে উদ্যত হলে তারা ওই ছিনতাইকারীকে জাপটে ধরেন। তাদের সঙ্গে ছিনতাইকারীদের ধস্তাধস্তির দৃশ্য দেখে পাশেই শিল্প পুলিশের সদস্যরা এগিয়ে আসেন। একই সময় কলেজ শাখা ছাত্রলীগ নেতারাও ছিনতাইকারীদের রক্ষার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে  পুলিশের সঙ্গে তারা ধাক্কাধাক্কিতে লিপ্ত হয়। তারা পুলিশ ও আনসার সদস্যদের আহত করে ছিনতাইকারীদের নিরাপদে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করে। এই খবর পেয়ে ব্যারাক থেকে শিল্প পুলিশ সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায় এবং আহত পুলিশ সদস্য হাবীব ও আনসার সদস্য লুৎফরকে উদ্ধার করে। এ সময় আনসার সদস্যদের সহযোগিতায় শিল্প পুলিশ সদস্যরা কলেজ শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী মঞ্জুর ও তার সহযোগী ছিনতাইকারী আমিনুল ইসলাম ইয়াসিনকে (২৫) ধাওয়া দিয়ে ধরে ব্যারাকে নিয়ে যায়। পুলিশের বেধড়ক পিটুনিতে ছিনতাইকারী ইয়াসিন ও কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি মঞ্জু আহত হয়। পরে ছাত্রলীগ নেতারা ব্যারাক ঘেরাও দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। খবর পেয়ে টঙ্গী মডেল থানা পুলিশ ও কলেজ অধ্যক্ষ ব্যারাকে গিয়ে কাজী মঞ্জুকে ছাড়িয়ে নেয়। ব্যারাক থেকে ছাড়া পেয়ে কাজী মঞ্জুর নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতারা বিকাল পৌনে ৩টায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে এবং কলেজের সামনে থেকে পুলিশ ব্যারাক প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। অবশেষে মোবাইল ফোনে স্থানীয় সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে বিকাল সাড়ে ৩টায় ছাত্রলীগ নেতারা অবরোধ তুলে নেয়। অবরোধ চলাকালে মহাসড়কের উভয়পাশে দীর্ঘ যানজটে আটকা পড়ে রোজাদার যাত্রীরা চরম দুর্ভোগের শিকার হন। টঙ্গী মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার জানান, আনসারদের পক্ষ থেকে অভিযোগ দেয়া হচ্ছে। ছিনতাই ঘটনায় ইয়াসিন নামের এক ছিনতাইকারীকে আটক করা হয়েছে। ইয়াসিন ঢাকা পলিটেকনিকেলের ছাত্র বলে দাবি করেছে। তার বাড়ি নরসিংদী জেলা সদরের দরিপাড়া বাসানিয়া গ্রামে তার পিতার নাম হানিফ মাস্টার বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানায়। টঙ্গী শিল্প পুলিশের ইনচার্জ আবু রায়হান সোহেল বলেন, আমার পুলিশ সদস্যদের কোনো দোষ নেই। যাদের টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা হয়েছে তাদের দেখানো মতে কাজী মঞ্জু ও ইয়াসিনকে আমার পুলিশ সদস্যরা আটক করেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *